ফিটনেস

যে ৫টি পানীয় চটপট কমিয়ে দেবে আপনার মেদ-ভুঁড়ি

যে ৫টি পানীয় চটপট কমিয়ে দেবে আপনার মেদ-ভুঁড়ি

জামা ঠেলে বের হয়ে আসা ভুঁড়িটাকে লুকাতে চেষ্টা করে যাচ্ছেন খুব, তাই না? খাবার টেবিলের মুখরোচক খাবারগুলোর দিকে শুকনো মুখে তাকিয়ে থেকে একটু সবজি, এক টুকরা মাছ বা মাংস আর ডাল দিয়ে খাচ্ছেন অল্প কয়টা ভাত নয়তো দুটো রুটি। অফিস থেকে অনেকটা পথও ঘেমে-টেমে হেঁটে আসছেন; যদি একটু ভুঁড়িটাকে কমানো যায় এই ভেবে?

কিন্তু কিছুতে কিছুই হচ্ছে না, তাই না? এতো কিছু যেহেতু করলেন, আর একটু না হয় চেষ্টা করুন। চেষ্টায় কী না হয়! এবার একটু সচেতন হোন আপনার পানীয়র ব্যাপারে। শুধু পাতের খাবার কমালেই হবে না, কী পান করছেন সেটা একটু ভেবে দেখুন। আর আসুন জেনে নেই আপনার অতিরিক্ত মেদ-ভুঁড়ি কমাতে কার্যকর এমন ৫ টি পানীয়ের বিষয়ে:

১। ভেজিটেবল জুস:

খাবার প্লেটের পাশে রাখতে পারেন এক গ্লাস ভেজিটেবল জুস। সেটা হতে পারে শশা, বাঁধাকপি, ব্রুকলি, গাজর, টমেটো বা অন্য যে কোন মৌসুমী সবজির। সবজির আঁশ আর পুষ্টি আপনার বিপাক কার্যক্রমকে উন্নত করবে। বাড়িয়ে দেবে এনার্জি। ক্ষুধার অনুভূতি থেকে দূরে রাখবে দীর্ঘক্ষণ।

২। ফলের জুস:

বাজারের কোল্ডড্রিঙ্কস, জুস আর এনার্জি ড্রিঙ্কসগুলোর কথা তো জানেনই। না জানলে জেনে নিন। বলবেন-ফলেতো ফরমালিন! ফরমালিন মুক্ত ফল সংগ্রহ করুন। তারপর জুস বানিয়ে পান করুন। ফলের পুষ্টি আপনার শরীরে জমে থাকা মেদ বিনাশ করবে। বিশেষ করে নাশপাতি আর ক্র্যানবেরির জুস শরীরের ফ্যাট কমাতে খুবি উপকারি।

৩। চিনিমুক্ত চা:

‘মামা, এক কাপ চা, দুধ-চিনি বাড়ায়’ এমন ভাবেই আপনি চাঘরে চায়ের অর্ডার করে থাকেন? তাহলে ভুঁড়ি কমানোর চিন্তা বাদ দিন। চিনিযুক্ত চা চলবে না। গ্রিনটি পান করুন। এটা পরীক্ষিত যে গ্রিনটি আপনার বিপাক শক্তি বৃদ্ধি করে দ্রুত ওজন কমাতে সহায়তা করে। আর যদি তাতে একচিলতে লেবুর রস ও এক চামচ মধু মিশিয়ে নেন তবে সেটা আপনার শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিনগুলোও দূর করবে।

৪। ব্ল্যাক কফি:

প্রচুর দুধ-চিনি আর কফিমেট দিয়ে কফি পানের অভ্যেসই যদি আপনার থেকে যায়, তবে কী লাভ এতো কিছু করে? ব্ল্যাক কফি ট্রাই করুন। সকালে আর বিকালে এক কাপ ব্ল্যাক কফির ক্যাফেইন আপনার ক্ষুধার মাত্রা কমিয়ে দেবে। কফি আপনার শরীরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে উদ্দীপনা সৃষ্টি করে যা বিপাকক্রিয়ার জন্য উপকারি।

৫। ননীমুক্ত দুধ:

চর্বিহীন প্রোটিন, ভিটামিন ডি, এবং ক্যালসিয়ামের চমৎকার একটি উৎস হচ্ছে দুধ। যা আপনার পেশীকে দেয় সুগঠন এবং হাড়কে দেয় প্রয়োজনীয় দৃঢ়তা। ননীমুক্ত দুধ আপনার শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন জোগাবে কোন রকম ফ্যাট সংযোজন ছাড়াই।

সর্বোচ্চ পঠিত

To Top
কুপা ভাজ করি ফেলা দেও :p

কুপা ভাজ করি ফেলা দেও :p

Posted by Radio Padma News on Tuesday, 4 September 2018
[X]