জানা- অজানা

আপনি জিনিয়াস কিনা দেখে নিন এই পাঁচটি লক্ষণের মাধ্যমে!

পরীক্ষার নম্বর আপনার জীবন নির্ধারণ করতে পারে না। আর এটাও জানান দিতে পারেনা যে আপনি কতটা বুদ্ধিমান। আমরা অনেক সময়ই নিজের বুদ্ধিমত্তার মূল্যায়নের জন্য আমরা অনেক সময়ই নির্ভর করে থাকে স্কুল বা কলেজের পরীক্ষার রেজাল্টের উপর। কিন্তু সেটা না করলেও চলে, আপনার চলন ধরণই বলে দেয় আপনি কতটা জিনিয়াস আর আপনি কতটা বুদ্ধিমান। আসুন দেখে নিই জিনিয়াসদের মধ্যে যেসমস্ত গুণগুলি থাকে, দেখে নিন আপনার মধ্যেও আছে কিনা!

৫. রাত্রি জাগার অভ্যেস:

জিনিয়াসদের দেহ ও মন সবসময়ই কিছু না কিছু করার জন্য উৎসুক হয়ে থাকে। তাই তাদের সহজে ঘুম আসেনা। রাত জেগে ইন্টারনেটে বিভিন্ন জিনিস জানা কিংবা বই পড়া তাদের অভ্যেসর মধ্যে। পৃথিবীর তাবড় তাবড় বিসনেসম্যান থেকে শুরু করে নানান তারকাও তাই করে থাকে।

৪. অলসতা:

বুদ্ধিমান মানুষরা সবসময় কোনো কাজ করার সময় সহজ পথগামী হন তাই তাদের মধ্যে অলসতার পরিমাণ বেশি হয়। বুদ্ধির দ্বারা কাজ করতে এরা বেশি ভালোবাসেন। তাই যেকোনো কাজে পেশিপ্রয়োগ কম করেন। তবে এক্ষেত্রেও ব্যাতিক্রম অবশ্যই রয়েছে।

৩.দুশ্চিন্তা করা:

মাত্রাতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করা একাধিক গবেষণাতে দেখা গেছে, যারা একটু বেশি মাত্রায় চিন্তা করেন, তাদের ব্রেন অ্যাকটিভিটি এতটা বেশি থাকে যে বুদ্ধির দিক থেকে এরা অনেককে পিছনে ফেলে দেন। আসলে কোনও বিষয় নিয়ে চিন্তা করার সময় আমরা একই সময় নানা বিষয় নিয়ে ভাবতে থাকি। ফলে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা অনেক বেড়ে যায়। তাই দুশ্চিন্তা সব সময়ই যে শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক, এমনটা ভেবে নেওয়ার কোনও কারণ নেই। তবে একথাও মনে রাখতে হবে যে, বেশি মাত্রায় টেনশন করলে রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ার মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই এ বিষয়ে সাবধান থাকাটা জরুরি।

২. ভ্রমণে উৎসাহী:

এদের জগৎটা চেনার আগ্রহ প্রচন্ড বেশি। তাই ভ্রমণে বেড়াতে এরা খুব ভালোবাসেন। সময় পেলেই প্ল্যান করেন এবং বেরিয়ে পরেন। প্রধানত এরা একটু বেশিই পাহাড় প্রেমী হয়ে থাকেন।

১. খুব ভালো লিখতে পারেন এবং বলতে পারেন:

এরা যুক্তি দিয়ে যেকোনো জিনিস খুব সহজে বিশ্লেষণ করতে পারেন। যেকোনো মঞ্চে এরা কিছু বলার চেষ্টা অবশ্যই করেন এবং বিভিন্ন জায়গায় স্টেজ মেকাপ দিতে পারদর্শী হন খুব ।

Loading...

সর্বোচ্চ পঠিত

Loading...
Loading...
To Top