স্বাস্থ্যকথা

আর নয় অযথা গ্যাসের সমস্যা

আর নয় অযথা গ্যাসের সমস্যা

হজমের সমস্যায় কম বেশি অনেকেই পড়ে থাকেন। বিশেষ করে শীতের এই সময়টাতে হজমের বা গ্যাসের সমস্যাটা একটু বেশিই দেখা দেয়। ঠিকমতো গোসল না করা, অতিরিক্ত গরম কাপড়ে নিজেকে মুড়ে রাখা, সারাক্ষণ গরম খাবার ও পানীয় পান ইত্যাদি এসব সমস্যা বাড়িয়ে চলে। তাছাড়া উৎসবের এই মৌসুমে দাওয়াতে বা নিজের বাড়িতে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি খাবার খেয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে। খাবার খেয়ে মজা পাওয়ার চেয়ে মাসুল দিতে হচ্ছে অনেক বেশি। পেট ফুলে যাওয়া, গ্যাসের সমস্যা হওয়া, পেট ব্যথা, বুক ব্যথা, চুকা ঢেকুরসহ নানা শারীরিক অশান্তি জেঁকে বসছে। অযথা এই গ্যাসের সমস্যাকে তাড়াতে দরকার সামান্য সচেতনতা। তাই…

চিবিয়ে খান

অনেকের অভ্যাস আছে মুখে খাবার দিয়ে দুয়েকবার চিবিয়ে গিলে ফেলা। এতে খাবার হজম হতে খুবই সমস্যা হয়। এই কাজটি হজমের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই খাবার খাওয়ার সময় যতো বেশি চিবিয়ে খাওয়া যায় হজমের জন্য ততই ভালো।

ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার

আমাদের হজমশক্তি উন্নত করতে ক্যালসিয়াম বিশেষভাবে কার্যকর। ক্যালসিয়াম আমাদের পরিপাকতন্ত্রকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতেও বেশ সহায়তা করে।

প্যাকেটজাত খাবার নয়

টিনজাত বা প্লাস্টিকের প্যাকেটজাত সংরক্ষিত খাবার খেলে হজমে সমস্যা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। কারণ খাবারগুলো যখন প্রসেস করা হয় তখন অনেক কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এসব খাবারে হজমের সমস্যা পাশাপাশি পরিপাকতন্ত্রের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে।

গ্রিন টি

হজমশক্তি বাড়ানো এবং হজমসংক্রান্ত সমস্যা এড়াতে গ্রিন টির তুলনা হয় না। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন টি হজমশক্তি বাড়ায় এবং আমাদের পরিপাকতন্ত্র সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

টকঝাল খাবার

মরিচের ক্যাপসাইসিন হজমশক্তি উন্নত করতে অনেক বেশি কার্যকর। খাবারে পরিমিত পরিমাণে ঝাল দিয়ে খেতে পারলে স্বাভাবিকভাবেই হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তাছাড়া প্রতিবেলা খাওয়া শেষে সামান্য একটু টক জাতীয় কিছু খেতে পারলে হজমে দারুণ উপকার পাওয়া সম্ভব। প্রতিবেলা খাওয়া শেষে আপনিও একটুকরো তেতুল খেতে পারেন।

পর্যাপ্ত শাকসবজি

পরিমিত পরিমাণে শাকসবজি খেলে হজমের সমস্যা এমনিই কমে আসে। শাকসবজি মানুষের দ্রুত হজম করতে সহায়তা করে। কাঁচা খাওয়া যায় যেসব সবজি তাতে হজমশক্তি আরও বেশি উন্নত হয়।

Loading...

সর্বোচ্চ পঠিত

Loading...
Loading...
To Top